Sponsor

banner image

recent posts

Romantic Love Story | Bangla Best Love Story In 2019 (6)

বাড়িওয়ালার মেয়ে... লেখক: আসাদ রহমান . পর্ব - ৬ - এর মাথায় কখন কি চলে হয়তো ওই নিজেও বুজতে পারে না। খাওয়ার পর্ব শেষ করে সবাই আর কিছুক্ষণ আড্ডা দিয়ে ঘুমাতে চলে গেলো সাথে মিশুও। অনেকদিন পর আম্মুর হাতের রান্না পেয়ে অনেক খেয়ে ফেলেছি তাই যলদি ঘুম চলে আসলো। তাই দেরি না করে শুয়ে পরলাম। সকালে ঘুম থেকে উঠেই আম্মুর বানানো নাস্তা খেয়ে কলেজ ছুটলাম। আজকাল হাবিব আমার আগে কলেজ যাচ্ছে বেপার টা বুজি না এতো যলদি যেয়ে কি করে। কালকে আমিও তার পিছে পিছে যাবো দেখবো কি করে। এখন এগুলো থাক, কলেজ গেলাম গিয়ে দেখি হাবিব বসে আছে। দেখেও না দেখার ভান করে ওকে ছেড়ে দূরে এসে বসলাম মুখে মুখে তাকাচ্ছিলো। কিছুক্ষণ পর ওইও পাশে এসে বসলো। হাবিব - কিরে আমাকে দেখেও কথা বললি না কেনো? - ওহ দোস্ত তুই তোরে আমি দেখি নাই কই ছিলি???? - থাক হয়েছে আর বলতে হবে না। - আচ্ছা বস আমি কিছু বলি শোন। - কি বলবি বল??? - বলছিলাম কি আর কতোদিন একা থাকবো আমি নাহয় দেখতে খারাপ তুই তো সুন্দর তুই একটা গফ খুজ। - অনেক ভালো বলছো ভাই আর তুমি করবা প্রেম??? এতো মেয়ে এসে প্রপোজ করলো তাও তুমি তাদের পাত্তা দিতে না এখন করবা প্রেম কতোবার বলছিলাম একটা আমারে দে আমারে দে দিলিও না। - আচ্ছা ওইগুলো বাদ দে এখন বল একটা মেয়ে খুজে দে প্রেম করি। - কেনো বাড়িওয়ালার মেয়ের সাথে প্রেম কর মনে হয়না ওর চেয়ে কিউট এই কলেজে কেও আছে। - কি বললি এই কথা আর একবার বলিস না ভাই অর সাথে প্রেম করবো আমি ভয় লাগে ভাই অনেক ভয়। খুব রাগি মেয়ে পেত্নী বল্লেও ভুল হবে আর তাকে আমি? জীবনে প্রেম না করতে পারলেও ওরে করমু না। - কথা গুলো আর একবার বলবেন শুনি ভালো লাগছিলো। পিছে থেকে কেও ঘাড়ে হাত দিয়ে কথা টা বললো মেয়ে কণ্ঠে। আমি বুজে গেছি এইটা কে মনে মনে ভয়ে কাপছি। আমি - ওহ তুমি কখন আসছো কলেজে???? - তুই আসার কিছুক্ষণ আগেই আসছি। ( রাগে ফুসছে) - আচ্ছা থাকো এই চল হাবিব একটু ঘুরে আসি। ( এইখান থেকে পালানোর চেষ্টা করছি) - আরে কই যাস হ্যা??? আমি পেত্নি আরো যেনো কি কি বলছিলি???? ওইগুলো আর একবার বল???? - ইয়ে মানে আপু তোমারে কিছু বলার মতো তো দেখছি না। আমরা এখন যায় বাই বাই। - ফ্রেন্ড??????? - কি বললে??? - না মানে কালকে ফ্রেন্ড এর অফার করছিলি আমি ভাবলাম শত্রু থেকে ফ্রেন্ড হয়ে থাকা ভালো তাই আসছিলাম। - ওহ। - ফ্রেন্ড?? ( শুধু হয়ে দেখ পেত্নি বলার সাধ মিটিয়ে দিবো) - হুম ফ্রেন্ড। ( হালকা হাসি দিয়ে) - আচ্ছা কই যাচ্ছো আমিও যাবো?? - আমরা কোথাও যাচ্ছিলাম???? - হ্যা। - কই না তো আমি তো এইখানেই থাকবো। - ওকে তাহলে আমি যায়। - যাও টাটা। মিশু তো গেলো, আমি ভাবছি এর সাথে ফ্রেন্ড হয়ে কি ভুল করলাম পরে যেনো উলটে বাশ খেতে না হয়। ফ্রেন্ড হয়েছি তো কি হয়েছে দূরে দূরে থাকবো। এমন মেয়ের সাথে থাকাও ভয়ের বেপার। কিন্তু একটা জিনিস লক্ষ্য করলাম সেই রাগলে তার দুইটা গাল লাল হয়ে যায় যার কারনে অনেক সুন্দর লাগে আরো বেশি। না এগুলো নিয়ে কথা বলবো না প্রেমে পরে গেলে সমস্যা। সেদিন ক্লাস করে বাসায় চলে আসলাম বাসায় আসার পর বিকালে শুয়ে ছিলাম বাইরে বেশি আওয়াজ হচ্ছিলো তাই আর ঘুমটা হলো না। বাইরে এতো কিসের আওয়াজ ঘুমাতেও দেয়না ঠিক মতো।বাইরে গিয়ে দেখি তো কি হচ্ছে। বাইরে আসলাম দেখি মিশু পেত্নি টা হাবিবের সাথে লুডু খেলছে আর চিল্লা চিল্লি করছে । আমি- এই এতো চিল্লাচিল্লি কিসের হ্যা??? ঘুমাতে দিবি না??? যা বাইরে যত্তসব ঘুম টাই নষ্ট হয়ে গেলো। ( ইচ্ছা করেই ঝাড়ি মেরে কথা বললাম।) মিশু- এতো রাগার কি আছে? বেশি বকলে খাওয়ারের সাথে বিশ মিসায় খাওয়ায় দিবো চুপ চাপ সামনে থেকে যান। আমরা খেলছি হুহ কথা থেকে উরে চলে আসছে জালাতে। যা বাব্বাহ আমার বাসায় আমারি কোনো দাম নাই। এই মেয়ের সাথে ঝগড়া করেও পারবো না তার চেয়ে ভালো জলদি যখন উঠছি বাইরে থেকে ঘুরে আসি সকালের ঠান্ডা হওয়া অনেকদিন থেকে খাওয়া হয়েনি। যেই ভাবা সেই কাজ তাদের সাথে আর কোনো কথা না বলে বাইরে এসে ঘুরাঘুরি করে কিছুক্ষণ পর বাসায় ফিরলাম। ফিরে খাওয়া দাওয়া শেষ করে শুয়ে পাবজি খেলছিলাম এমন সময় মিশুর কল। মেজাজ টা কেমন লাগে খেলার টাইমে কল তার মধ্যে মিস কল। ( যারা পাব্জি খেলেন ভালোই বুজবেন কেও কল দিলে কেমন লাগে 🤣) বার বার কল দিচ্ছে যতবার কাটছি এবার ফোন টা ধরেই অনেক জরে একটা ঝাড়ি মারলাম। আমি - কি সমস্যা????? একবার কল কেটে দিচ্ছি বুজতে হবে বেস্ত আছি এতো কল দিয়ার কি আছে। ওপর পাশ থেকে অচেনা কণ্ঠে কেও কথা বলতে শুরু করলো। - আরে ভাই কল দিচ্ছি ধরবেন তো নাকি??? এই মোবাইল টা যার সেই কিছুক্ষণ আগে বাজারের রাস্তায় এক্সিডেন্ট করেছে আমি তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসছি আপনার নাম্বার টা ওপরে দেখলাম ওনার মোবাইলে তাই আপনাকেই কল দিলাম জলদি চলে আসুন মেয়েটার অবস্থা খারাপ। এই কথা শুনার পর মনে হলো পুরো দুনিয়া টা ঘুরে গেলো। এই কি শুনলাম আমি???? ওপর পাশের লোকটাকে কিছু না বলেই কল কেটে ছুটে বের হয়ে গেলাম হাসপাতালের দিকে। মাথাই কোনো চিন্তা আসছে না শুধু আসছে কিভাবে জলদি যাওয়া যায়। to be continued..............
Romantic Love Story | Bangla Best Love Story In 2019 (6) Romantic Love Story | Bangla Best Love Story In 2019 (6) Reviewed by শেষ গল্পের সেই ছেলেটি on ডিসেম্বর ১৭, ২০১৯ Rating: 5

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.