Sponsor

banner image

recent posts

মামাতো বোনের প্রেমে

মামাতো বোনের প্রেমে... লেখক:মেঘ ... প্রান্তি__ওই তুই আমাদের বাড়িতে কেন??(দরজা খুলে) শুভ__ওই কেউ হবু বরকে তুই বলে? প্রান্তি__বর মানে?,,, শুভ__তুই বুঝিস না? প্রান্তি__না আমি বুঝি না আর বুঝতেও চাই না,,এই কথা বাদ এখন কেন এসেছিস সেটা বল,, শুভ__আমি কি তোদের বাড়িতে আসতে চাই নাকি,মামি বললো তাই আসতে তাই আসলাম.. শুভ__(ধরা খেয়ে গেছি এখন কি বলি) মামি__আচ্ছা বুঝচ্ছি, এরপর শুভ প্রান্তির দিকে তাঁকিয়ে দেখলো প্রান্তি রেগে আছে,এখন প্রান্তিকে দেখতে খুবই কিউট লাগছে,, এটা দেখে শুভ একটা চোখ মারলো,,😜 এবার প্রান্তি আরো রেগে গেল এবং ওখান থেকে নিজের রুমে চলে গেল... এবার পরিচয় দিয়ে দিই,শুভ হল মধ্যবিত্ত ঘরের সন্তান,, , শুভর বাবা একটা প্রাইমারি স্কুলের টিচার আর মা গৃহিনী...শুভর কোনো ভাই বোন নেই। আর প্রান্তি হল একটু রাগি টাইপের মেয়ে,,প্রান্তির বড় ভাই আছে,,প্রন্তি হল শুভর মামাতো বোন, শুভর ২ বছরের ছোট,,প্রান্তিরা আগে সিলেট থাকতো কিন্ত এখন তারা কোনো এক কারনে গ্রামে থাকে শুভর দাদুর বাড়িতে আর প্রান্তির বাবা একজন ব্যাবসায়ি , আসলে শুভ প্রান্তিকে পছন্দ করে,,তাই বার বার সুযোগ পেলেই প্রান্তিদের বাড়িতে আসে একবারের জন্য প্রান্তিকে দেখতে,প্রান্তি জানে শুভ তাকে পছন্দ করে কিন্তু শুভকে বুঝতে দেয় না ,,বিকেলে দিকে শুভ নিজের বাড়িতে চলে যায় আসলে শুভর বাড়ি থেকে শুভর মামা বাড়ির দুরত্ব বেশি নয়। এভাবেই দিন কাটতে থাকে কিন্তু শুভ সাহস করে শুভর মনের কথা প্রান্তিকে বলতে পারে না। ১ মাস পর.... আজ শুভর পিসির মেয়ে মানে পিসতোতো বোনের বিয়ে তাই সবাই শুভর পিসির বাড়িতে বিয়ে অনুষ্ঠানে একসাথ হয়েছে,,গায়ে হলুদের দিন রাতে,, শুভ__নেহা(শুভর ছোটো মামার মেয়ে)আমার একটা কাজ করে দেয় না.. নেহা__কি কাজ বল,,?? শুভ__প্রান্তিকে একটু ছাদে নিয়ে যা আমি ওর সাথে কথা বলবো,, নেহা__আমি এইসব কিছু করতে পারবো না,, শুভ__তুই আমার জন্য এইটুকু করতে পারবি না.. নেহা__না আমি পারবো না,, শুভ__তাহলে আর কি মামিকে আমি তোর ওনার কথা বলে দেব,, নেহা__তুই না আমার ভালো ভাই,,প্লিজ তুই মাকে কিছু বলিস না আর আমি রাজি আমি প্রান্তি নিয়ে আসতেছি,, শুভ__হাহাহাহহাহহা (ডেবিলের হাসি দিয়ে) এরপর নেহা আর প্রান্তি ও প্রান্তির একটা বান্ধবী টুম্পা মিলে ছাদে যায়,,,কিন্তু রাত ছিল তাই ছাদের এক কোনে প্রান্তিকে দাড় করিয়ে রেখে নেহা আর টুম্পা চলে যায়,মানে --নেহা,টুম্পা তোরা কইরে? (একটু ভয়ে প্রান্তি) --ওরা কেই নাই, ওরা বাড়িতে চলে গেছে,, (মোবাইলের আলো দিয়ে শুভ..মানে ছাদ অন্ধকার ছিল) --তুই এখানে?? --কেন অন্য কেউ আসার কথা ছিল নাকি,, --ও এখন সব বুঝেছি,, এগুলো সব তোর কাজ,, --ওই তুই আমাকে তুই করে বলিস কেন,,আগে তো তুই করে বলতি না এখন আবার তুই করে বলিস কেন,,(কিছুটা রেগে) --দেখ সব ভাই বোনের ভিতরে তুই সেরা বুঝলি? --কি তুই সেরা ভাই😠😠তাই না দাঁড়া তুই,,(এই বলে প্রান্তির হাতটা ধরলো শুভ) প্রান্তি এবার ভয় পেল গেল তাই বলতে শুরু করলো..... --না না ঠিক আছে ভাইয়াই ডাকবো, আর তুই বলবো না,, --মনে থাকবে তো? ---হু থাকবে,এখন আমায় বাড়ি দিয়ে আসেন না প্লিজ,, --আচ্ছা চল,, এরপর সৌরভ পিনুকে বাড়ি পৌছে দিল,,ঘরে ডুকার সময়,, --দেখ তুই ভাবিস না আমি তোকে ভাইয়া ডাকবো ভাই বোনের ভিতরে তুই সেরা বুঝলি,,তাও আবার বড় ভাই‌ বলে কথা --ওরে শয়তান কি বললি তুই, বলেই প্রান্তি দৌড় দিছে জানে এখানে থাকলে কি হতে পারে।শুভ বাড়ি চলে আসে.. বাড়িতে এসে শুভ নেহা কল দেয়.. --কিরে কল দরতে এতক্ষন লাগে কেন?কার সাথে কথা বলছিস..(শুভ) --কারো সাথে না, কি জন্য কল দিয়েছিস সেটা বল(নেহা) --আমি তো মনের কথা প্রান্তিকে বলতে পারলাম না, তুই আমার হয়ে আমার কথা ওকে বলিস,, --না আমি পারবো না,, প্রান্তি যে রাগি এই কথা শুনলে আমাকে মাইর দেবে,, --প্লিজ, তুই আমার ছোট বোন না,,? --আচ্ছা ঠিক আছে আমি তোর কথা পিনুকে বললো দেখি কি হয় তসর পর.. সেদিন রাতেই নেহা প্রান্তির রুমে যায় ,,এবং প্রান্তিকে সব বলে,... সকালে নেহা শুভকে কল দেয়,, --কিরে পিনু কি বললো,,?(উত্তেজিত হয়ে শুভ) --নারে ভাই প্রান্তি তোকে মামাতো ভাই ছাড়া অন্য কিছুই ভাবে না,,, ওর মনে তোর জন্য কোন অনুভূতি নেই,,এমন কি ও তোকে পছন্দ ও করে না তুই ওর সাথে কথা বললে ও নাকি বিরক্ত হয়।ভদ্রতার খাতিরে নাকি কথা বলে তোর সাথে.. --ওওও (মন খারাপ করে কলটা কেটে দেয়) আপনাদের যদি ভালো লাগে তাহলে পরের পর্ব দেওয়া হবে... #To_be_continue...
মামাতো বোনের প্রেমে মামাতো বোনের প্রেমে Reviewed by শেষ গল্পের সেই ছেলেটি on জুলাই ২৫, ২০১৯ Rating: 5

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.