গল্প বহুরুপি মানুষ

মা কি বাবা ওঠ আর কতো ঘুমাবি কাজে যেতে হবে তো। না মা আজ কোনো কাজ নাই। কেনো সবাইতো জাইতেছে। মা আমার একটা কাজ আছে। তাই আমি যাবো না। ওদের কে বোলে দিছি আমি মুন্না। আর একটু আগে যে মহিলার সাথে কথা বোললাম তিনি আমার মা। ছোটো খাটো একটা কাজ করে কোনো মতো দিন কাটাই ।আমারা মা ছেলে মিলে। ওহ ভাবছেন সংসারে অভাব তো কাজে কেনো গেলাম না আসোলে সামনে ঈদ হাতে তেমন টাকা নেই ।তাই একজন একটা কাজের কথা বোলছে সেখানেই যাবো বোল্ল অনেক টাকা দেবে। সকালে উঠে নাস্তা করে বের হলাম সকাল দশটায় জাবার কথা ছিলো গিয়ে দেখা কোরলাম তার সাথে আর একটা কথা আমি কিছুটা পরাশুনা কোরেছি তার পাশাপাশি আমার বোন্ধু আমাকে গাড়ি চালানো শিখিয়ে ছিলো । আস্সালামু অলাইকুম। কিছু খন তাকিয়ে থাকার পর অলাইকুম আস্সালাম। তুমি কি মুন্না জি সার গাড়ি চালাতে পারো জি স্যার। পরালেখা কতো দুর ক্লাজ5 বাবা মারা যাবার পর আর পরাশুনা কোরতে পারিনি যাই হোক প্রতি মাসে 14 হাজার টাকা বেতন পাবে। সাথে সাপ্তাহিক ছুটি এবংঈদ বোনাস ও আছে থাকা খাওয়া ফ্রি কি চাকরি কোরবে জি স্যার । ঠিক আছে কাল থেকে কাজ শুরু করো। আর এই নাও। এড্ভান্স 10 হাজার টাকা ঠিক আছে স্যার । বোন্ধুরা এতো খন যার সাথে কথা বোল্লাম তার নাম আজিজ সাহেব খুব ধোনি লোক। আর তার মোন্টাও খুব ভালো সচা আচার এমন লোক দেখা যায় না যাই হোক টাকা পায়ছি এবার ঈদের কেনা কাটা কোরবো তারপর বাড়ি যাবো। বাজারে গিয়ে মার্কেটে মায়ের জন্য দুইটা কাপর কিন্লাম আমার নিজের জন্য একটা প্যান্ট আর একটা গেন্জি কিনে বের হবো দরজার সামনে জেতেই সে কি বেদারক ধাক্কা জেনো বাসের সাথে ধাক্কা খেলাম আগেই বোলে রাখি আমার মেজাজ টা খুব করা তাই ছেলে না মেয়ে। সেটা না দেখেই একটা থাপ্বর মেরে দিলাম। চোখে দেখেন না নাকি মেয়ে সরি ভাইয়া আমি ইচ্ছে করে ধাক্কা মারিনি আমি, সরো রাস্তা থেকে বোলেই চোলে আসলাম বারি ফিরতেই কিরে বাবা এতো বেলায় কোথায় ছিলি সারাদিন আর হাতে ওগুলো কি এই তো ঈদের মার্কেট কিরে কিরে মুন্না তোর সাট্টা লাল কেনো হাতে কি হোইছে বাবা,,,,,,চ ,,,,চলবে,,,,,নাকি বাদদিবো গল্পটা সবে শুরু আস্সালামু অলাইকুম আমার গল্পটা ভালো লাগলে অবশ্যই জানাবেন তাহলে বাকিটা লিখবো আর নইলে না ,,,,,,পঁচা শামুক,,,,,,

কোন মন্তব্য নেই

diane555 থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.