বুধবার, ১৫ মে, ২০১৯

নীল অপরাজিতা রুপা

♥নীল অপরাজিতা রুপা♥ আজ রুপা রোহানের প্রথম বিবাহ বার্ষিকী। রুপা তার রুমটা সুন্দর করে সাজিয়েছে,কেক রেডি করেছে,মোটামুটি সব করা শেষ, এখন শুধু রোহানের আসার অপেক্ষা। রোহানের অফিস শেষ হবে রাত ৯ তার দিকে।রুপা আজ অনেক সুন্দর করে সেজেছে,ঠিক যেন হিমুর রুপার মত। ড্রেসিং টেবিলে বসে আয়নায় নিজেকে দেখে চুল আঁচড়াচ্ছে রুপা, টেবিলের উপর রাখা রুহান আর রুপার বিয়ের ছবির দিকে চোখ্ পরলো রুপার....মনে পাতায় ভেসে উঠল তাদের প্রেমময় দিন গুলি.... এক্সকিউজ মি... এক্সকিউজ মি.....এক্সকিউজমি... !!! (রুপা মনে মনে ভাবছে,তবে কি ছেলে টা কানেকম শুনে? এতবার ডাকার পরেও কোনো সাড়া নেই ) এক্সকিউজ মি !!! হুম ( মোবাইলে গেমস খেলছিল,না তাকিয়েই উত্তর দিল রুহান ) রুপা - কি ব্যাপার?এতবার ডাকছি,কানে যায় না? রুহান - হুম,বলেন কি বলবেন? ( এবার রুহান মুখ তুলে তাকালমেয়েটির দিকে ) রুপা - I love you ( অনেক টা রাগ নিয়ে ) রুহান - কি বললেন বুঝি নাই !!! রুপা - I love you,I love you,I love you এবার বুঝেছেন? রুহান - সরি ? এটা তো আমাকে আমার আম্মু বলে,আপনি কি ভাবে জানলেন? রুপা -( রেগে গিয়ে ) আমি কি একটু বসতে পারি? রুহান - না !!! আসলে আমি বাচ্চাও কোলে নেই না,আর আপনাকে কোলে নিব?অসম্ভব!!! রুপা -( রেগে গিয়ে )অসভ্য আমি তর কোলে বসতে চায় নাই. রুহান - ওহ !!! তা আমার কোলে বসতে না চাইলে কোথায় বসতে চেয়েছেন?এখানে তো বসার জায়গাই নেই,একজনের বেঞ্চ এটা দেখতেই তো পাচ্ছেন. রুপা - কুত্তা,এমনি তে ক্লাসে তোর গলায় আওয়াজ বের হয়,এখন তো দেখছি খুব পাকনা তুই। রুহান- সরি,আমার নাম কুত্তা না,রুহান।আর হা,আমি ক্লাসে অযথা বকবক পছন্দ করি না। রুপা - এই কিসেরএত ভাব তোর?এত Rude কথা বলিস কেন? রুহান - আজব,একটু আগে আপনি করে বলেছেন,এখন তুই? উঁহুঁ,একটু ধীরে এগুবেন তো?আপনি এর পর তুমি এবং তাঁরপর তুই !!! রুপা - আমি এত কিছু জানি না, I loveyou দিছি উত্তর দেন। রুহান - সরি !!! আম্মু হলে আই লাভ ইয়ু টু দিতাম।কিন্তু আপনাকে আই হেট ইয়ু ওদিতে পারছি না। রুপা - কেন দিতে পারছেন না?আমি কি খুব খারাপ? ( রাগ আর কান্না মিশ্রিত গলায় ) রুহান - দেখুন,আপনি অনেক সুন্দরী,কিউট,ড্যাশিং,আপনি অনেক ভালও ছেলে পাবেন,দুয়া করি।প্লিজ আমাকে আর জ্বালাবেন না।বলে উঠে চলে গেল রুহান.... রুপা চোখের পানি থামিয়ে রাখতে পারল না... শিখা রুপার বান্ধবী :- শিখা - আরে তুই এটা কি করলি?কলেজে এত পোলা থাকতেঐ কুচকুচে কালো পোলা টার কাছে গেলি প্রেম নিবেদন করতে?কলেজের সব ছেলে রা তূর জন্যে পাগল,কত সুন্দর সুন্দর ছেলে।আর তুই ঐ রোহানের কাছে গেলি?যার সাথে আমরা কথাও বলি না কালো বলে।সে নিজেও দূরে রাখে নিজেকে।আচ্ছা। তূর ওঁকে ভালও লাগলো কি ভাবে?কি আছে অর মাঝে?এত ছেলে তোকে অফার দিছে , মানিস না,গেলি কালাইয়ের কাছে?আর সে তূর মতো মেয়েকে ফিরিয়েও দিল?এত বড় অপমান?শিখা একাই বক বক করছে...রুপার মন খারাপ..ও চুপ করে আছে... রুপা কলেজে অন্যতম সুন্দরী মেয়ে গুলার মধ্যে একজন।কলেজে আসার পর মোটামুটি সব ছেলেই অর সাথে কথা বলতে চেয়েছে,প্রেম অফার দিয়েছে,কিন্তু শুধুমাত্র একজন ছাড়া,সে রুপার দিকে ফিরেও তাকালো না।শুধু রুপা না ! সে কারো দিকেই তাকাই না,কথা বলে না,একা একা থাকতো। মানুষসাধারণত তার দিকে আগ্রহী হয় উৎসাহী হয় যে সবার চেয়ে আলাদা,ব্যতিক্রম। রুপাও আস্তে আস্তে কালো ছেলে টার সম্পর্কে জানা শুরু করলো,ছেলে টাকে নিয়ে অনেক প্রশ্ন ছিলও রুপার মনে,সব উত্তর সে বের করেও ফেলেছে। নাম রুহান।খুব মেধাবী,বাবা মায়ের একটা মাত্র ছেলে।অনেক হ্যান্ডসাম,তবে গায়ের রঙ টা একটু কালো।আর কালো বলেই সবাই ওকে রাগাই,আর এই জন্যেই রুহান নিজে কে দূরে রাখে সব কিছু থেকে।একা একা থাকে। রুপা রোহানের ব্যাতিক্রমতা ভাবতে ভাবতে দুর্বল হয়ে পড়েছে... ওর কাছে রুহান এর গায়ের রঙ কালো তা কোনো বড় দোষ এর কিছু মনে হল না।কালো বলে কি তার হাসার অধিকারনেই?ফ্রেন্ডশীপ করার অধিকার নেই? আর ১০ জন সুন্দর ছেলে দের মতো চলার অধিকার নেই? রুপা অনেক চেষ্টা করেছে ফ্রেন্ডশীপ করার,কথা বলতে চেয়েছে,কিন্তু রুহান সুযোগ দেইনি। সময় যেতে যেতে রুপা রোহানের প্রেমে পড়ে গেছে।মনে মনে প্রেম অনেক দিন হয়েছে।এবার রুহান কে সত্যি সত্যি চায় রুপার।আর চুপ থাকলে চলবে না... পর দিন,কলেজে :- রুহান তার মোবাইলে মেসেজ পেল '' ছাদেআসো প্লিজ,আমি ওয়েট করছি। আমি জানি তুমি আমাকে অনেক লাভ করো,কালো বলেই দূরে সরে থাকো। তুমি কালো এতে আমার কিছু যায় আসে না।আমি তোমার সুন্দর মন কে বুঝেছি ভালবাসছি।প্লিজ লাস্ট একটা বার আমি তোমার সাথে কথা বলতে চাঁই। '' রুহান মেসেজ টা পড়ে একটু ভয় পেল,মেয়ে টা উল্টা পাল্টা কিছু করবে না তো... রুহান ছাদের দিকে দোর দিল..রুপা দাড়িয়ে আছে ছাদে... রুপা -( রোহানের দিকে তাকিয়ে ) তুমি যদি আমার ভালবাসা গ্রহন না করও তবে আমি এই ঘুমের অষুধ গুলা খেয়ে মরে যাব। ( হাতের মুঠোয় অনেক গুলা ট্যাবলেট দেখিয়ে বলল) রুহান - ( ভয় পেয়ে ) প্লিজ এসব পাগলামী করও না। তুমি আমার মতও কালো ছেলে কে কেন ভালবাসলে? কত সুন্দর সুন্দর ছেলে তোমাকে পাগলের মতও ভালবাসে আর তুমি আমাকে?তুমি অনেক সুন্দর আর ভালও ছেলে পাবে,প্লিজ এসব পাগলামি করিও না. রুপা রেগে গিয়েসব গুলা ট্যাবলেট মুখ পুরে ঢুকিয়ে দিল... রুহান চিৎকার দিয়ে বলল না রুপা প্লিজ ট্যাবলেট গুলা মুখ থেকে ফেলে দাও,আমি তুমাকে ভালবাসি অনেক ভালবাসি সত্যি। রুপা - তুমি সত্যি আমাকে ভালবাস?আমাকে ছেড়ে যাবে না তো?সত্যি ভালবাস? রুহান - হুম,রুপা আমি তুমাকে অনেক ভালবাসি। তোমাকে ছেড়ে যাব না কোনদিন। তুমি প্লিজ ওষুধ গুলা ফেলে দাও মুখ থেকে। রুপার মাথা যেন ঘুরছে,চারদিকে অন্ধকার দেখছে,পড়ে যাবার মতো অবস্থা,ধরে ফেল ল রুহান,অনেক টা ভিতু রুহান,রুপা রোহানকে জড়িয়ে ধরে হাসতে হাসতে বলে,আরে গাধা !!! ওই গুলা ঘুমের ট্যাবলেট না,সিভিট।আমি আমার আমার ভালবাসার মানুষ কে পেয়ে মরবো, না পেয়েনই, হি হি হি. রুহান রেগে গিয়ে রুপার চুল টেনে ধরলো,কুত্তী তুই আমাকে ভয় পাইয়ে দিলি,তোকে আজ ছাড়বো না..... পিছন থেকে কেউ যেন রুপার চুল ধরলো,হুম রুহান।রুহান অফিস থেকে এসে গেছে, রুহান রুপাকে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরে কপালে একটা আদুর দিয়ে বলল '' চল কেক টা কেটে ফেলি......''

কোন মন্তব্য নেই: