Recents in Beach

কোটচাঁদপুর উপজেলা / Kotchandpur Upazila

Kotchandpur Upazila, Jhenidaha ভৌগোলিক অবস্থান : ১৬৫.৬৬ বর্গ কি: মি: আয়তনের কোটচাঁদপুর উপজেলা (ঝিনাইদহ) জেলা উত্তরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা, দক্ষিণে মহেশপুর ও চৌগাছা উপজেলা, পূর্বে কালিগঞ্জ উপজেলা এবং পশ্চিমে চুয়াডাঙ্গা সদর ও জীবনগর উপজেলা দ্বারা বেষ্টিত। প্রধান নদ-নদী ও বিল-বাওড় : প্রধান নদ-নদীগুলো হচ্ছে চিত্রা ও কপোতাক্ষ। বুড়োর বিল ও বালুহার বাওড় উল্লেখযোগ্য। শহরের আয়তন ও জনসংখ্যা : ১৮৮৩ সালে কোটচাঁদপুর পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। ৯টি ওয়ার্ড ও ৪৩টি মহল্লা নিয়ে ইহা গঠিত এই পৌরসভা। শহরের আয়তন ১৭.৮৫ বর্গ কি: মি:। শহরের জনসংখ্যা ৩২২১৭, পুরুষ ৫১.৪১%, মহিলা ৪৮.৪৯%। শহরের অধিবাসীদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৪১.৫%। প্রশাসন : ১৮৮৩ সালে কোটচাঁদপুর থানা প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৮৩ সালে এটি উপজেলায় রূপান্তরিত করা হয়। ১টি পৌরসভা, ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ, ১১৪টি মৌজা এবং ৭৯টি গ্রাম নিয়ে উপজেলাটি গঠিত। স্থাপত্য ঐতিহ্য ও পুরার্কীতি : চাঁদ খান মাজার (১৬৫৬), শিভাবাড়ী মন্দির (১৬৮০), রথখোলা (সপ্তদশ শতাব্দী), মহিলা কলেজ ভবন (১৮০৫), নওদা গ্রামে জামে মসজিদ (১৮৮৪), বারাবামান্ধা জামে মসজিদ (১৮৮৫), ইক্‌রা মন্দির, গম্বুজ মন্দির (জালালপুর), তারিন দত্ত এবং নিবারণ চন্দ্রের দোতলা ভবন (কোটচাঁদপুর বাজার), শিবমন্দির সংরক্ষিত পিতলের তৈরি সিংহাসন এবং তিনটি মুর্তি (জগন্নাথ, বলরাম এবং শুভঢ়াড়া) জগন্নাথ মন্দির সংরক্ষিত। জনসংখ্যা : মোট জনসংখ্যা ১৫৭১৯৩। পুরুষ ৫১.৪%, মহিলা ৪৮.৬%, মুসলমান ৮৮.২৯%, হিন্দু, ১১.৭০% এবং অন্যান্য ০.০১%। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান : মসজিদ ২৫২টি, মন্দির ২০টি এবং সৌধ ৩টি। সাক্ষরতা : গড় সাক্ষরতা ২৬-৯%। এর মধ্যে পুরুষ ৩৩.৫% ও মহিলা ১৯.৯%। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান : কলেজ ৩টি, হাইস্কুল ৯টি, জুনিয়র হাইস্কুল ২টি, মাদ্রাসা ১১টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ৩৭টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ২৯টি, কিন্ডার গার্ডেন স্কুল ২টি। উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কোটচাঁদপুর পাইলট হাইস্কুল (১৮৯৯), কোটচাঁদপুর ডিগ্রী কলেজ (১৯৬৯)। স্থানীয়ভাবে প্রকাশিত সংবাদপত্র ও সাময়িকী : উন্মেষ (১৯৭৫) (বিলুপ্তি), স্বাধীনতা আমার স্বাধীনতা (১৯৮১), কানাকাল (১৯৮০), কিংশুক (১৯৮০), কোটচাঁদপুর সাহিত্য (১৯৮২), অগ্নিশিখা (১৯৮৪), ডিনামাইড (১৯৮৪), মা (১৯৮০), গীতানগা (১৯৯৮), শতমনি (১৯৯১)। সাংস্কৃতিক সংগঠন : ক্লাব ২৩টি, গণগ্রন্থাগার ১টি, কমিউনিটি সেন্টার ৫টি, প্রেসক্লাব ২টি, সমবায় সমিতি ১৭১টি, ব্যবসায়ী সমিতি ১টি এবং কল্যাণ কেন্দ্র ১টি। প্রধান পেশা : কৃষি ৪২.৫৯%, কৃষি শ্রমিক ২৫.২০%, মজুরী শ্রমিক ৩.০২%, ব্যবসা বাণিজ্য ১১.৯৭%, চাকুরী ৪.৯৫% এবং অন্যান্য ১২.২৭%। ভূমির ব্যবহার : ব্যবহৃত মোট চাষযোগ্য জমি ১৭৭৩৪ হেক্টর, খাস জমি ৬২.৮১ হেক্টর, পতিত জমি ২৮.৩৩ হেক্টর, একক ফসল ৩৪.৩২%, দ্বিফসলী ৫৬.২৭%, ত্রিফসলী ৯.৪১%, সেচের আওতায় চাষযোগ্য জমি ৬৩%। ভূমি নিয়ন্ত্রণ : চাষীদের মধ্যে ৩০% ভূমিহীন, ৩৩% ক্ষুদ্র, ২৭% মধ্যম এবং ১০% ধনী। মাথাপিছু চাষযোগ্য জমির পরিমান ০.১০ হেক্টর। প্রধান ফসল : ধান, পাট, গম, আখ এবং তরিতরকারী। বিলুপ্ত অথবা প্রায় বিলুপ্ত ফসল : নীল, মসিনা বা তিসি, তিল, চীনা, মেসতা, তামাক ও কাউন। প্রধান ফল : আম, কাঁঠাল, কলা, জাম, তাল, পেয়ারা এবং আমড়া। যোগাযোগ সুবিধা : পাকা সড়ক ৭৩ কি: মি:, কাঁচা সড়ক ৪৭৪ কি: মি: ও রেলপথ ১৫.৮২ কি: মি:। ঐতিহ্যবাহী পরিবহন : পাল্কী (বিলুপ্ত), ঘোড়ার গাড়ী ও গরু গাড়ী (প্রায় বিলুপ্ত) এবং নৌকা। কলকারখানা : চাউল কল ১৪টি, করাত কল ১০টি, ওয়েলডিং ৯টি এবং মিশ্রী কারখানা ২টি। কুটির শিল্প : মৃৎশিল্প ১০, স্বর্ণকার ৩২, কাঠের কাজ ৩০, দর্জি ১৫৪, পিতলের কাজ ২ এবং চাকা তৈরি (গরুর গাড়ী) ২। হাট, বাজার ও মেলা : হাট-বাজারের মোট সংখ্যা ১৭টি। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে কোটচাঁদপুর, সাফদারপুর, এলাহী, তালসার, গুরুপাড়া, জালালপুর ও কুসনার হাট। মেলা মোট ৮টি। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে বৈশাখি মেলা, কালিতলা মেলা ও চৈত্র সংক্রান্তি মেলা। প্রধান রপ্তানী : ধান, পাট, আখ, আম, তরিতরকারী ও খেজুরের গুড়। এনজিও তৎপরতা : তৎপরতা চালাচ্ছে এমন গুরুত্বপূর্ণ এনজিও গুলো হচ্ছে ব্র্যাক, আশা, গ্রামীণ ব্যাংক এবং রিকো। স্বাস্থ্য কেন্দ্র : উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১টি, পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ২টি, মাতৃসদন ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ৩টি, বেসরকারী ক্লিনিক ১টি এবং পশু চিকিৎসা হাসপাতাল ১টি। তথ্য সূত্র : বাংলা পিডিয়া ওয়েবসাইট অনুবাদ :আসাদ রহমান। সম্পাদনা : মো:আসাদ রহমান সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২০১১