Recents in Beach

ফেইসবুক প্রেম

গল্পের নাম ____ফেইসবুক প্রেম !
পর্ব : 2
লেখক:md Asad Rahman
হটাৎ করে মেয়ে টা আবার কল করল অনেক রাতে ! তারপর বলল দেখা করা যাবে না একটু অসুবিধা !
ছেলে : কী অসুবিধা বলো আমাকে !
মেয়ে : আচ্ছা অন্য একদিন দেখা করবো কেমন !
ছেলে : তাহলে কথা দিলে কেন !
মেয়ে : বলছি তো একটু অসুবিধা !
ছেলে : তুমি কী আমাকে ভালোবাসো না !
মেয়ে : কেন কী মনে হয় !
ছেলে : কী মনে হবে ! তুমি যখন তোমার অসুবিধার কথা বলতে চাওনা তখন তুমি আমাকে কিছুই ভাবনা তাই না !
মেয়ে : তুমি কেন এরকম বলছো বলো তো সব কথা বলা যায়না সব সময় !
মেয়ে : আচ্ছা এখন রাখি পরে কথা হবে !
ছেলে : আচ্ছা বাই :
মেয়ে : বাই !
এভাবে কথা বলতে বলতে মেয়ে টা ঘুমিয়ে পড়লো !
তখন ছেলে টা না ঘুমিয়ে ভাবতে লাগলো যে কী হয়েছে হটাৎ করে দেখা করার কথা বললাম রাজি হয়ে গেলো আবার বললো অসুবিধা ওকি আমাকে বিশ্বাস করতে পারছে না নাকি অন্য কিছু ! আচ্ছা যায় হোক পরে দেখা যাবে এখন ঘুমিয়ে পড়ি ! তারপর ছেলেটাও ঘুমিয়ে পড়লো !
সকালে ঘুম থেকে উঠে দুজনে মোবাইল চেক করল কেউ কাউকে কোনো sms করেনি !
তারপর দুজন দুজন কে এক সাথে কল করছে কারোর মোবাইলে কল যাচ্ছে না !
মেয়ে টা তখন ভাবলো যে কথা টা বলিনি বলে মোবাইল টা অফ করে রেখেছে !
আর ছেলেটা ভাবছে যে ওকি অন্য কারোর সাথে কথা বলছে !
আবার ছেলেটি কল করল মেয়েটিকে !
কল টা রিসিভ করল মেয়েটা তারপর...
মেয়ে : আমি শুধু দেখা করিনি বলে এইরকম করলে আমার সাথে !
ছেলে : মানে তুমি তো আমাকে ভুলে গিয়েছো !
মেয়ে : এসব কী বলছো তুমি ! আমার মোবাইলে sms আসেনি বলে আমি তোমাকে অনেক্ষন ধরে কল করছি তোমার মোবাইলে আর তুমি আমাকে এরকম বলছো মানে টা কী আমি দেখা করবো না বললাম তাই তুমি আমাকে এতো কথা বলছো ! এই তোমার ভালোবাসা !
ছেলে : দেখো আমি তোমাকে সকাল থেকে কল করছি তোমার মোবাইলে কল যাচ্ছে না আর তুমি তো দেখা দিবেই আমি কেন রাগ করবো বলো !!
মেয়ে : থাক আর বলতে হবে না !
ছেলে : বলতে হবেনা মানে কী ! তোমার মোবাইলে কল যাচ্ছিলো না কেন উত্তর দাও !
মেয়ে : আমি জানিনা !
ছেলে : তাহলে কে জানে !
মেয়ে : আমি তোমাকে 06:45 মিনিট থেকে কল করেই যাচ্ছি আর তুমি আমাকে......
ছেলে : আরে আমিও তো এই টাইম থেকে কল করছি !
মেয়ে : ওহ তাই বলো এই জন্য কল যাচ্ছে না দুজন একসাথে কল করলে কী করে কল যাবে !
ছেলে : বুঝলাম !
মেয়ে : তুমি আমাকে গুড মর্নিং জানাওনি কেন !
ছেলে : তুমি জানাওনি কেন !
মেয়ে : আমি তো এখুনি ঘুম থেকে উঠলাম ! আর তুমি তো অনলাইনে ছিলে !
ছেলে : আমি কেন sms করিনি তুমি ভালোই জানো !
মেয়ে : আচ্ছা বাবু তুমি এতো রাগ করো কেন শুনি !
ছেলে : জানিনা !
মেয়ে : তোমাকে যদি কাছে পেতাম না তাহলে......
ছেলে : তাহলে কী, চড় মারতে বুঝি !
মেয়ে : সব রাগ ভাঙিয়ে দিতাম !
ছেলে : কী করে রাগ ভাঙতে শুনি?
মেয়ে : বলবো না লজ্জা করে !
ছেলে : না বলে করে দেখাতে পারো !
মেয়ে : কিইইইই শখ কত বাবুর !
ছেলে : শখ তো সবার আছে সোনা মনি !
মেয়ে : আমার শখ নেই গো সোনা আর কিছু চাওয়ারও নেই ! শুধু তোমাকে পেলেই হবে আর কিচ্ছু চাইনা আমার !
ছেলে : আচ্ছা তোমাকে একটা কথা জিজ্ঞেস করবো বলবে !
মেয়ে : হুমম বলবো যদি তুমি কথা টা শুনে বারণ না করো.. !
ছেলে : আচ্ছা কী বলো !
মেয়ে : আসলে আমি আজকে বাড়িতে থাকবো না গ্রামের বাড়ি বেড়াতে যাবো তাই দেখা করতে পারবো না !
ছেলে : কালকে বললে না কেন !
মেয়ে : তুমি যদি বারণ করো তাই বলিনি !
ছেলে : তুমি আমাকে এতটা ভালোবাসো তোমাকে বারণ করলে তুমি কোনো কাজ করবে না !
মেয়ে : তুমি যেটা বলবে আমি সেটাই করবো আর আমি জানি তুমি আমাকে বারণ করবে না তবুও বলতে ভয় লাগলো তাই বলিনি যদি বারণ করো তাই.... !
ছেলে : আমি জানি তুমি কোনোদিন ভুল করবে না আর তোমার যেখানে যেতে ইচ্ছে করবে তুমি যেতে পারো আমি বারণ করবো না সোনা !
মেয়ে : তাই নাকি বাবু, যদি মরে যায় তাহলে কী করবে শুনি !
ছেলে : এই কথা টা যদি আর একবার বলো তাহলে তুমি আমার মৃত্যু খবর শুনবে !
মেয়ে : না এসব বোলোনা প্লিজ প্লিজ প্লিজ আমি আর কোনোদিন বলবো না !
ছেলে : মনে থাকবে !
মেয়ে : হুমম !
ছেলে : কান ধরো তাহলে !
মেয়ে : তাহলে তুমিও কান ধরো তুমিও তো বলেছো !
ছেলে : আচ্ছা কাউকে ধরতে হবেনা এখন একটু বাইরে যাবো পরে কথা হবে কেমন সোনা !
মেয়ে : ও আচ্ছা এখন আমার বাবু অন্য কারোর সাথে দেখা করতে যাবে বুঝতে পারছি বাবু যাও !
ছেলে : আচ্ছা দোয়া করো তার সাথে যেন খুব তাড়াতাড়ি দেখা হয় !
তারপর দুজনে অন্য কাজে ব্যাস্ত হয়ে গেলো !
রাতের মেয়েটা আবার কল করল কিন্তূ.............
বাকি টা পরে চলবে.............
লেখার মধ্যে কিছু ভুল করলে ক্ষমা করবেন বন্ধু রা !
দোয়া করি সবাই সুখে শান্তিতে থাকেন !

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ