একটি ছেলের জীবন কাহিনী ২০১৯ - MD ASAD RAHMAN

Recent

test banner

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

একটি ছেলের জীবন কাহিনী ২০১৯

Share This
লেখক:-মোঃআসাদ রহমান কোটচাঁদপুর,ঝিনাইদহ মেয়েটা চলে যেতে লাগলো তখন তামিম বলল এই যে আপু শুনুন আপনার এতো কিসের অহংকার?আপনাকে দেখে অন্যরা প্রেমে পড়ে যেতে পারে কিন্তু আমরা না। মেয়ে :-how dear you? তোদেরকে আমি দেখে নেব। (মেয়ে টা একটু রাগী ও অহংকারী ছিল) তামিম :-ছবি তুলে দেব যখন খুশি তখন দেখে নেবেন। মেয়ে টা:-youuuu.. সুজন:-আরে যা যা।যা করার করে নিস। মেয়ে টা চলে গেল এবং একটা ফাঁকা বেঞ্চ এ গিয়ে বসল।কয়েকটা মেয়ে এসে তার সাথে বন্ধুত্ব করলো। মিম:- হাই আমি মিম( হাত বাড়িয়ে দিয়ে) মেয়ে টা:- হাই আমি তমা। মিম:- আমার কি তোমার বন্ধু হতে পারি। তমা:-sure. তারপর সাথি,সুমি ও মুন্নি সাথে তমা বন্ধুত্ব করে নেয়। এদিকে আমির,সুজন ও তামিম আমির:-প্রথম দিন থেকেই ঝগড়া শুরু করেছে।জানি না এর পরের কি করবে? সুজন:-একে তো শায়েস্তা করতে হবে তাই না হলে ঐ মেয়ে টা সোজা হবে না । তামিম:-হ্যাঁ টিক বলিছির।ওকে তো আমি দেখে নেবো। মেডাম ক্লাসে এসে তামিমদের বলল কিরে হারামির দল আজ কি দুষ্টামি করিছির। আমির:- না ম্যাম কিছু করি নি।আমরা কি দুষ্টামি করতে পারি।আমাদের মত ভালো ছেলে কি আর এই ক্লাসে আছে।আপনিই বলুন?? মেডাম:-আমি ভালো করে জানি তোরা ভালো না খারাপ।তোদের মতো একটাও এই স্কুলে নেই। তারপর মেডাম তমাকে দেখে বলল এই মেয়ে তুমি কি এই স্কুলে নতুন। তমা:-জি ম্যাম। মেডাম:-ও তা তোমার নাম কি?? তমা:-তামান্না আক্তার তমা,, ম্যাম। মেডাম:-ভালো নাম।তোমাদের পড়া বের কর??মেডাম পড়ানো শুরু করল।আজ প্রথম ক্লাস তাই বেশি পড়ালো না।মেডাম সবারকে বলল আজ আমি তোমাদের কাছে তোমরা কে কি হবে তাই নিয়ে কথা বলবো?একে একে সবাই বলল কেউ ডাক্তার হবে আবার কেউ ইঞ্জিনিয়ার আবার কেউ বড় ব্যবসায়ী হবে।কেবল বাকি সুজন,আমির,তামিম ও তমা।এবার আমিরের পালা মেডাম:-আমির এবার তুমি বল তুমি কি হবে?? আমির:-মেডাম আমি বড় হয়ে একটা সুন্দর দেখে মেয়ে বিয়ে করে বউ এর সাথে রোম্যান্স করবো।(এটা শুনে ক্লাসে সবাই হাসাহাসি শুরু করল।) মেডাম:-stop.বেয়াদব ছেলে বসো।তুমি বলল সুজন তুমি কি হবে?? সুজন:-আমরা তিনবন্ধু যেন এক সাথে থাকতে পারি।শত কাজের মাঝে ও যেন আমাদের কেউ আলাদা করতে না পারে। মেডাম একথা শুনে অবাক হয়ে বলল:-ভালো কিন্তু তোমরা যখন কলেজ উঠবে তখন তো তোমরা বিভিন্ন জায়গায় কলেজে ভর্তি হবে তখন? তামিম:-না ম্যাম।আমরা একসাথে একিই কলেজে ভর্তি হব। মেডাম:-ভালো ।তামিম তুমি বলো তুমি কি হবে? তামিম:-ম্যাম আমি একজন ভালো ডাক্তার হতে চায়।কারণ আমাদের গ্রামে কোনো ভালো ডাক্তার নেই।আমি গ্রামের গরিব মানুষের সেবা করতে চায়।(একথা ক্লাসে সবাই তালি বাজায়।তমাও তালি বাজায়।একথা শুনে তমার ভালো লেগে যার তামিম কে।) মেডাম:-ভালো ।এবার তমার তুমি বলো তুমি কি হবে? তমা:-আমি নার্স হয়ে অসুস্থ মানুষের সেবা করতে চায় । শুনতে শুনতে স্কুল ছুটি হয়ে যায়।তখন তমা এসে তামিমের সাথে কথা বলতে যায়। তমা:-হাই তামিম। আমি তমা। তামিম:-হাই আপনি আমার নাম জানলে কি করে?🤔🤔🤔 তমা:-ঐ যে মেডাম আপনার নাম ধরে ডেকেছিল। তামিম:-ওও। তমা:-আমরা কি বন্ধু হতে পারি?? যখন তামিম কিছু বলতে যাবে তখন আমির বলল sure. আমি আমির আর ও সুজন । সুজন:-হাই। তমা:-হাই। তামিম:-ওকে আমরা তাহলে এখন বাড়ি যায়।কাল দেখা হচ্ছে । তমা :-ওকে বাই তামিমরা:-বাই সবাই বাড়ি চলে গেল।এরপর থেকে তাদের বন্ধুত্ব ভালো চলছিল দুষ্টামিতে।এভাবে তাদের SSC পরীক্ষা চলে আসে।তারা সবাই ভালো পরীক্ষা দেয়।একদিন তমাকে ওরা তিনজন দুষ্টামি করে ভয় দেখায়।তমাও খুব ভয় পায়।এদের দুষ্টামি তমার ভালো লাগে আর তামিমের দুষ্টামি তো তার খুব ভালো লাগে।বলতে গেলে তমা তামিমকে ভালোবেসে ফেলেছে।তামিম ও তমাকে ভালোবাসে।কিন্তু কেউ কাউকে বলতে পারে না।ভয় থাকে যদি তাদের বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে যায়।একদিন তমা তামিমকে ফোন করে বলে তামিম তুই কোথায়? তামিম:-এই তো সুজনদের সাথে আছি।কেন কি হয়েছে? তমা:-কিছু না।আমার সাথে এখন তোরা দেখা করতে পারবি। তামিম:-আচ্ছা আসছি।কোথায় আসবো বল?? তমা:-🏨এই জায়গায় আয়। তামিম:-ওকে আসছি। তারপর ওরা সেখানে পৌছালো।গিয়ে দেখি তমা ওখানে দাড়িয়ে আছে সাথে একটা মেয়ে আছে। আমির:-কেমন আছির তমা? তমা:-ভালো আছি।তোরা কেমন আছির? সুজন:-আমরা ভালো আছি।অই মেয়েটা কে?? তমা:-এর সাথে তোদের পরিচয় করিয়ে দি।এ হচ্ছে আমার মামাতো বোন সুজনা। সুজনা এই হচ্ছে আমার বন্ধু সুজন,আমির আর তামিম । সুজন:-হাই সুজনা।?(হাত বাড়িয়ে দিয়ে) সুজনা:-হ্যালো সুজন।(হাতটা ধরে)সুজন আর সুজনা হাত ধরে আছে ছাড়ার নাম নিচ্ছে না আর অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে। আমির সুজনকে একটু ধাক্কা দিয়ে বলে:- আমাদের একটু পরিচিত হতে দে। সুজন আর সুজনা লজ্জায় মাথা নিচু করে দাড়িয়ে আছে। তামিম:-তা কিসের জন্য ডেকেসিস বল? তমা:-সুজনাকে নিয়ে শপিং করতে যাব।তাই তোদের ডেকেছি। আমির:-চল তাহলে। তমা:-চল। শপিং মহলের ভিতরে গিয়ে তামিম,আমির আর তমা প্ল্যান করে সুজন আর সুজনাকে কথা বলার জন্য সুযোগ দিবে যাতে প্রেম করতে পারে।শপিং শেষে তারা একটা রেস্টুরেন্টে যায়।সেখানে খাবারের অডার দিয়ে আমির,তামিম আর তমা কেটে পরে প্ল্যান মোতাবেক।তারপর..........(((চলবে)))

কোন মন্তব্য নেই:

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here

Pages